অক্টোবর থেকে নেতাকর্মীদের প্রস্তুতির আহ্বান মওদুদের

নিজস্ব প্রতিবেদক :
আগামী ১ অক্টোবর থেকে নেতাকর্মীদের ‘সর্বাত্মক প্রস্তুতি’ নিতে বলেছেন বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।
গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীতে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় বিএনপির সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরামের সদস্য এই প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।
জাতীয়তাবাদী প্রজন্ম ’৭১-এর উদ্যোগে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে এই আলোচনায় তিনি বলেন, আমরা এবার খালি মাঠে গোল দিতে দেব না। উই উইল নট অ্যালাউ দিস গভর্নমেন্ট গো আনচ্যালেঞ্জড। জনগণকে নিয়েই আমরা থাকব। আসুন পহেলা অক্টোবর থেকে রেডি হয়ে যান, রেডি হয়ে যান।
মওদুদ বলেন, স্বৈরাচারী সরকারকে অপসারণ করতে হলে সারা জাতিকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়াকে আরো শক্তিশালী করতে হবে। মাঠে নামতে হবে। জনগণের জোয়ার এই সরকারকে দেখাতে হবে এবং দেখবে সরকার।
তিনি বলেন, জনগণকে সঙ্গে নিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে আমরা আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে এই সরকারকে অপসারিত করব। শান্তিপূর্ণভাবে ভোটের মাধ্যমে, কোনো ভায়োলেন্সের মাধ্যমে নয়।
জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া নিয়ে নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের জবাবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বলেন, যখন জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া ড. কামাল হোসেন এবং ডা. বদরুদ্দোজা চৌধুরী সাহেব শুরু করলেন তখন তারা (ক্ষমতাসীনরা) স্বাগত জানালেন। কিন্তু এখন প্রধানমন্ত্রী বলছেন, এই ঐক্য প্রক্রিয়া দুর্নীতি, ঘুষখোর, সুদখোরদের নিয়ে ঐক্য তৈরি করা হয়েছে এরা জনগণের জন্য কিছু করতে পারবে না।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে এই ধরনের অশালীন বক্তব্য আমরা কখনোই আশা করি না। প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করব- আপনি এই বক্তব্য প্রত্যাহার করুন। তা না হলে রাজনীতিতে কোনো শালীনতা আর থাকবে না। কারণ দুর্নীতির কথা যদি বলেন তাহলে বর্তমান সরকারের চাইতে আমাদের গত ৫০-৬০ বছরে এমনকি পাকিস্তান আমল থেকে শুরু করে কোনো সরকার এত দুর্নীতি করেনি। আর আজকে আমাদের আপনি দোষারোপ করছেন।
মওদুদ দৃঢ়তার সঙ্গে বলেন, আপনাদের বক্তব্যের পর জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার জনপ্রিয়তা আরো বৃদ্ধি পাবে। কারণ তারা জানে জাতি ঐক্যবদ্ধ হলে যে কোনো স্বৈরাচারী সরকারের পতন হয়।
সংগঠনের সভাপতি ঢালী আমিনুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, কেন্দ্রীয় নেতা আশরাফউদ্দিন বকুল, আবদুস সালাম আজাদ, রফিক শিকদার, জাসাসের শাহরিন ইসলাম শায়লা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।