শিরোনাম :
বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজ্ঞাপন : মোবাইল ব্যাংকিংয়ের লেনদেন সীমা কমেছে
Published : Thursday, 12 January, 2017 at 12:00 AM
অর্থনৈতিক প্রতিবেদক
বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজ্ঞাপন : মোবাইল ব্যাংকিংয়ের লেনদেন সীমা কমেছেমোবাইল ব্যাংকিং ব্যবস্থার অপব্যবহার ঠেকাতে লেনদেন সীমা কমানোসহ বেশ কিছু নতুন নির্দেশনা জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। সন্ত্রাসে অর্থায়ন ও ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিট্যান্স প্রবাহ কমায় গতকাল বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস ডিপার্টমেন্ট এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।
বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন নির্দেশনা অনুযায়ী, একজন গ্রাহক একবারে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা উত্তোলন করতে পারবেন। আগে সর্বোচ্চ সীমা ছিল ২৫ হাজার টাকা। এখন থেকে গ্রাহক দৈনিক দু’বার এবং মাসে ১০ বার এই সেবা নিতে পারবেন, যা আগে ছিল দৈনিক তিনবার এবং মাসে ১০ বার। একইসঙ্গে দৈনিক জমার সীমাও পরিবর্তন করা হয়েছে। এতে এখন থেকে দিনে সর্বোচ্চ দু’বারে ১৫ হাজার টাকা করে পাঠানো যাবে। যা মাসে ২০ বারে এক লাখ টাকার বেশি হতে পারবে না। আগে দিনে পাঁচ বারে ২৫ হাজার টাকা এবং মাসে সর্বোচ্চ ২০ বারে দেড় লাখ টাকা করে জমা করা যেত। এছাড়া একটি মোবাইল ব্যাংকিং হিসাবে টাকা জমার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ওই হিসাব থেকে সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার টাকার বেশি নগদ উত্তোলন করা যাবে না।
প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, কোনো গ্রাহকের একই জাতীয় পরিচয়পত্র বা স্মার্টকার্ড বা অন্য কোনো পরিচয়পত্রের বিপরীতে একাধিক মোবাইল হিসাব থাকলে ওই গ্রাহকের সঙ্গে আলোচনা করে তার বেছে নেয়া যে কোনো একটি মোবাইল হিসাব চালু রেখে অন্য হিসাবগুলো বন্ধ করে দিতে হবে। কোনো ক্ষেত্রে গ্রাহকের সঙ্গে আলোচনা করে এ ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ কঠিন হলে, যে হিসাবটিতে সর্বশেষ লেনদেন হয়েছে, তা চালু রেখে অন্য হিসাবগুলো বন্ধ করতে হবে।   
প্রজ্ঞাপনে আরো বলা হয়েছে, এক ব্যক্তির হিসাব থেকে অন্য ব্যক্তির হিসাবে আগের মতো প্রতিদিন সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা এবং মাসে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা স্থানান্তরের সীমা বলবৎ রাখা হয়েছে।
বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসের অপব্যবহার রোধকল্পে এবং এই সেবার সুশৃঙ্খল ও যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করতেই লেনদেনের সীমা পুনর্নিধারণ করা হয়েছে। বিভিন্ন সময়ে মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ব্যবহারে সন্ত্রাসে অর্থায়ন ও হুন্ডিদের দৌরাত্ম্য রোধে বাংলাদেশ ব্যাংক এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
সম্প্রতি ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিট্যান্স প্রবাহ কমার অন্যতম কারণ হিসেবে ব্যাংক কর্মকর্তারা মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ব্যবহারে হুন্ডি হওয়ার অভিযোগ করেন। এতে করে মোবাইল ব্যাংকিং সেবায় লেনদেনের পরিমাণ কমিয়ে দিয়ে হুন্ডি হ্রাসের চেষ্টা করছে বাংলাদেশ ব্যাংক।
বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, কোনো মোবাইল হিসাবে ৫ হাজার টাকা বা তদূর্ধ্ব নগদ অর্থ জমা বা উত্তোলনে গ্রাহককে পরিচয়পত্র বা স্মার্টকার্ডের ফটোকপি প্রদর্শন করতে হবে, যা এজেন্ট তার রেজিস্টারে লিপিবদ্ধ করবেন। এমনকি রেজিস্টারে গ্রাহকের স্বাক্ষর বা টিপসই সংরক্ষণের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। কোনো এজেন্ট এসব কাজ যথাযথভাবে সম্পন্ন না করলে বা গাফিলতির প্রমাণ পাওয়া গেলে এজেন্টশিপ বাতিল করার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।







শেষ পাতা'র আরও খবর

অ্যাপস ও ফিড
সামাজিক নেটওয়ার্ক
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আনিস আলমগীর
প্রকাশক : জাকারিয়া চৌধুরী
রোড -১৩৮, প্লট - ১/এ, গুলশান-১, ঢাকা-১২১২
ফোনঃ +৮৮-০২-৫৫০৪৪৯৪৩-৫, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫০৪৪৯৪৮
ই-মেইল : info@manobkantha.com, mkonlinedesk@gmail.com
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । মানবকণ্ঠে প্রকাশিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র ও অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আনিস আলমগীর, প্রকাশক : জাকারিয়া চৌধুরী
রোড -১৩৮, প্লট - ১/এ, গুলশান-১, ঢাকা-১২১২ ফোনঃ +৮৮-০২-৫৫০৪৪৯৪৩-৫, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫০৪৪৯৪৮
ই-মেইল : info@manobkantha.com, mkonlinedesk@gmail.com