শিরোনাম :
রবিনহুডের গুপ্তধন
অনলাইন ডেস্ক
Published : Wednesday, 11 January, 2017 at 8:14 AM
রবিনহুডের গুপ্তধনগরিবদের ‘ঈশ্বর’ খ্যাত, রবিনহুড চতুর্দশ শতকের শেষ থেকে পঞ্চদশ শতকের প্রথমার্ধ্ব পর্যন্ত নটিংহ্যামশায়ারের শেরউড জঙ্গল শাসন করতেন। কথিত আছে, ধনীদের সম্পত্তি লুট করে এনে তিনি নাকি বিলিয়ে দিতেন গরিবদের মধ্যে। তার আস্তানা   ছিল এই শেরউড জঙ্গল। এই জঙ্গলেই মিলল লক্ষাধিক টাকার গুপ্তধন।   স্থানীয় মার্ক থম্পসন  গুপ্তধন খোঁজার নেশাতে এই শেরউডের জঙ্গলেই খোঁজাখুঁজি করছিলেন।

ভাবতেও পারেননি মধ্যযুগের এমন একটি ‘আশ্চর্য’ আবিষ্কার করে ফেলবেন। ৩৪ বছরের মার্ক পেশায় স্প্রে-পেইন্টার। রবিনহুডের শেরউড জঙ্গলকে গুপ্তধন খোঁজার জন্য মার্ক বেছে নিয়েছিলেন । মেটাল ডিটেক্টর আর ছোট একটি দল নিয়ে শুরু হয় মার্কের অভিযান। ১৮ মাস ধরে খোঁজাখুঁজির পর সম্প্রতি ভাগ্যের চাবিকাঠি পায় মার্ক। মেটাল ডিটেক্টরের নির্ভুল শব্দ জানান দেয় কোনো ধাতব জিনিস লুকিয়ে রয়েছে মাটির নিচে।

মাটি খুঁড়তেই সোনালি রঙের একটি বস্তু দেখতে পান মার্ক। মাটির তলা থেকে উদ্ধারের পর দেখা যায় সেটি খাঁটি সোনার একটি বহুমূল্যবান আংটি। যার মাথার ওপর সদম্ভে বিরাজমান নীল রঙের একটি পাথর। আংটির গায়ে যিশুর মূর্তি আঁকা। অন্য দিকে খোদাই করা রয়েছে একজন নারী সন্তের ছবি। ঐতিহাসিকদের মতে, এই আংটি চতুর্দশ শতকের। রবিনহুডের লুট করা সম্পত্তিও হতে পারে এই আংটি। বর্তমানে যার বাজার মূল্য প্রায় ৬৫ লাখ টাকা।
আংটি পেয়ে উত্তেজিত মার্ক জানিয়েছেন, এই আংটি তার জীবন বদলে দেবে। এই মুহূর্তে তিনি বাসা ভাড়া নিয়ে থাকেন। ইচ্ছা আছে এই আংটি নিলাম করে যে টাকা পাবেন তা দিয়ে পছন্দমতো বাড়ি কিনবেন তিনি। আর ট্রেসার হান্টকেই পেশা করবেন। বর্তমানে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আংটিটি ব্রিটিশ মিউজিয়ামে পাঠানো হয়েছে। এই মুহূর্তে আবিষ্কারের সঙ্গে পরীক্ষায় পাস হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন আবিষ্কারকও। ‘রবিনহুডের আংটি’ মিউজিয়ামের প্রশংসাপত্র পেলে তবেই নিলামে যাবে। 





অ্যাপস ও ফিড
সামাজিক নেটওয়ার্ক
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আনিস আলমগীর
প্রকাশক : জাকারিয়া চৌধুরী
রোড -১৩৮, প্লট - ১/এ, গুলশান-১, ঢাকা-১২১২
ফোনঃ +৮৮-০২-৫৫০৪৪৯৪৩-৫, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫০৪৪৯৪৮
ই-মেইল : info@manobkantha.com, mkonlinedesk@gmail.com
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । মানবকণ্ঠে প্রকাশিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র ও অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আনিস আলমগীর, প্রকাশক : জাকারিয়া চৌধুরী
রোড -১৩৮, প্লট - ১/এ, গুলশান-১, ঢাকা-১২১২ ফোনঃ +৮৮-০২-৫৫০৪৪৯৪৩-৫, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫০৪৪৯৪৮
ই-মেইল : info@manobkantha.com, mkonlinedesk@gmail.com