শিরোনাম :
যুক্তরাজ্য আ’লীগ নেতার বহিষ্কারাদেশে তোলপাড়!
জুয়েল রাজ, যুক্তরাজ্য
Published : Wednesday, 4 January, 2017 at 10:12 AM, Update: 04.01.2017 10:44:38 AM
যুক্তরাজ্য আ’লীগ নেতার বহিষ্কারাদেশে তোলপাড়!যুক্তরাজ্য আ’লীগ নেতাকে বহিষ্কারাদেশে তোলপাড়!যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে! যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুকের স্বাক্ষর সম্বলিত দলীয় প্যাডে প্রকাশিত সংবাদে বলা হয়েছে, ‘দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ,বৈরী রাজনৈতিক সংগঠন থেকে অসাদুপায়ে অর্থ গ্রহণের মাধ্যমে দলে লোক ঢুকানোর অভিযোগে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।’ 
গত ২০ ডিসেম্বর যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক স্বাক্ষরিত এক পত্রে এ বহিষ্কারাদেশ দেয়া হয়। সংগঠনের গঠনতন্ত্রের ৪৬(ক) ধারা অনুযায়ী সকল সদস্যের সম্মতিক্রমে আনোয়ারজ্জামান চৌধুরীকে সকল সদস্য পদ ও প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে বলে জানানো হয়। আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির যৌথ সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণের বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে। 
যুক্তরাজ্য আ’লীগ নেতার বহিষ্কারাদেশে তোলপাড়!এই সংবাদটি প্রকাশিত হবার পর মঙ্গলবার রাত থেকে যুক্তরাজ্য ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে চলছে তোলপাড়। পক্ষে বিপক্ষে নানা প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছেন দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ ফেসবুক ব্যবহারকারীগণ। সংবাদটি ‘সত্য, না ভূয়া’ এই নিয়েও চলছে জল্পনা-কল্পনা। অনেকেই ফোন করে ঘটনার সত্যতা জানতে চেয়েছেন। 
ঘটনার সত্যতা জানতে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক শাহ শামীম আহমদ এ প্রতিবেদককে বলেন, আমরা এর কিছুই জানি না, কে বা কারা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষর জালিয়াতি করে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের প্যাডে এই বহিষ্কারাদেশ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করছে। আমরা এর বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেয়ার কথা ভাবছি। 
যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ বলেন, ‘আমরা যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ জানিনা, অথচ আমাদের কমিটির একজনকে বহিষ্কারের আদেশ সংবাদ মাধ্যম জানে। এসব এক ধরণের ফাজলামী ছাড়া কিছু নয়। জামায়াত ইসলাম ও যুদ্ধাপরাধীদের সন্তানদের কাজ এটা। যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগকে বিভক্ত করতে এসব বিভ্রান্তি ছড়াতে  চাইছে। 
সাধারণ সম্পাদক সাজিদুর রহমান ফারুক জানান, ‘এসব এক ধরনের মানসিক বিকার, আমরা জানি না কারা এই কাজটি করেছে। তবে যারাই করেছে খুব জঘন্য কাজ করেছে এবং দিনশেষে আওয়ামী লীগের ক্ষতি করার জন্যই এ সমস্ত বানোয়াট সংবাদ প্রকাশ করে আওয়ামী লীগকে দূর্বল করতে চাইছে। অন্যদিকে, আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী যুক্তরাজ্যের বাইরে থাকায় তার কোন মন্তব্য জানা সম্ভব হয়নি। 
যুক্তরাজ্য আ’লীগ নেতার বহিষ্কারাদেশে তোলপাড়!এদিকে, সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের পক্ষে দপ্তর সম্পাদক শাহ শামীম আহমদ তার ফেসবুকে এর প্রতিবাদ জানিয়েছেন এবং শীঘ্রই লিখিতভাবে সংবাদ মাধ্যমেও জানাবেন বলে জানিয়েছেন। তিনি লিখেন, 
‘আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীকে নিয়ে ভুয়া, মিথ্যা সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ’।
গতকাল, ৩রা জানুয়ারি সোমবার একটি ভুয়া, নাম সর্বস্ব, অনলাইনে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীকে নিয়ে একটি ভুয়া, মিথ্যা সংবাদ আমাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। সংবাদটি সর্বৈব মিথ্যা এবং এ সংবাদের সাথে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের কোন সম্পর্ক নেই। আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী একজন সম্মানিত লোক এবং যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক স্বাক্ষরিত এক প্রতিবাদ লিপিতে এমন অসত্য, বানোয়াট, ভিত্তিহীন সংবাদের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়।
প্রতিবাদ লিপিতে তারা বলেন, প্রকাশিত সংবাদে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের প্যাড জাল করে এবং সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষর জাল করে মনগড়া, ভিত্তিহীন সংবাদ ছাপানো হয়েছে। আমরা মনে করি এটি হলুদ সাংবদিকতার শামিল। স্বাক্ষর জাল করে এবং সম্মানিত ব্যক্তিদের নামে ফেইসবুকে একাউন্ট খোলে এসব যারা ছড়াচ্ছেন তারা নিশ্চয়ই অপরাধী। এসব অপরাধীদের ধরতে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করছে এবং সকলের সহযোগীতা কামনা করছে। এসব ভূয়া/স্বাক্ষর জালকারী ব্যক্তিদের সম্পকে কারোও কোন তথ্য জানা থাকলে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগকে জানাতে অনুরোধ করা যাচ্ছে এবং এ ধরনের মিথ্যা, অসত্য অপপ্রচার থেকে বিরত থাকতে অনুরোধ জানাচ্ছে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ।’ 
যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে এই ভূয়া বহিষ্কার-বহিষ্কার খেলা চলছে বিগত বছর দুয়েক ধরেই। আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর এই ভূয়া বহিষ্কারের সংবাদের এক সপ্তাহ আগে হঠাৎ করে কে বা কারা ‘যুক্তরাজ্য আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সায়েদ আহমদ সাদকে বহিষ্কার’ বলে বি বার্তা নামক একটি পোর্টালে ভূয়া নিউজ ছাপিয়ে দেয়, যা কয়েক ঘন্টা পরে আবার মুছে ফেলে।
গত বছর একইভাবে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের প্যাড ও সভাপতি সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষর জাল করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাহাব উদ্দিন চঞ্চল কে বহিষ্কারের নির্দেশ সংক্রান্ত  ভুয়া সংবাদ প্রচার করেছিল। যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দল নাকি আওয়ায়ামী লীগে বিভক্তি সৃষ্টি করতে তৃতীয়পক্ষের জালিয়াতি এই নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন সাধারণ নেতাকর্মীগণ, পাশাপাশি এই ভূয়া বহিষ্কার সংস্কৃতি থেকে বের হয়ে আসার অনুরোধ জানিয়েছেন তাঁরা। 

মানবকণ্ঠ/এনএস





অ্যাপস ও ফিড
সামাজিক নেটওয়ার্ক
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আবু বকর চৌধুরী
প্রকাশক : জাকারিয়া চৌধুরী
রোড -১৩৮, প্লট - ১/এ, গুলশান-১, ঢাকা-১২১২
ফোনঃ +৮৮-০২-৫৫০৪৪৯৪৩-৫, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫০৪৪৯৪৮
ই-মেইল : info@manobkantha.com, mkonlinedesk@gmail.com
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । মানবকণ্ঠে প্রকাশিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র ও অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : আবু বকর চৌধুরী, প্রকাশক : জাকারিয়া চৌধুরী
রোড -১৩৮, প্লট - ১/এ, গুলশান-১, ঢাকা-১২১২ ফোনঃ +৮৮-০২-৫৫০৪৪৯৪৩-৫, ফ্যাক্সঃ +৮৮-০২-৫৫০৪৪৯৪৮
ই-মেইল : info@manobkantha.com, mkonlinedesk@gmail.com