নেতা হয়ে বসে থাকলে চলবে না: প্রধানমন্ত্রী

ফাইল ছবি

আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সংগঠনের নেতা হয়ে শুধু বসে থাকলে চলবে না। যে সম্প্রদায়ের জন্য সংগঠন, সে সম্প্রদায়ের মানুষের জন্য কাজ করতে হবে। তাঁতিদের কল্যাণে কাজ করতে হবে তাঁতী লীগকে। তাদের সমস্যাগুলো কী তা দেখতে হবে। তাদের দিকে বিশেষভাবে দৃষ্টি দিতে হবে।
রোববার দুপুরে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ (কেআইবি) মিলনায়তনে তাঁতী লীগের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।
শেখ হাসিনা তাঁর দল আওয়ামী লীগের সব সহযোগী সংগঠনকে নিজেদের নীতি-আদর্শ মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে বলেন, সুষ্ঠু নীতিমালায় কাজ না করলে আগানো যায় না। আওয়ামী লীগ সরকারই তাঁতিসহ সর্বস্তরের পেশার মানুষের উন্নয়নে কাজ করে উল্লেখ করে তিনি বিভিন্ন প্রকল্প ও কর্মসূচির কথা তুলে ধরেন।
আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, তাঁতশিল্প চরম অবহেলার শিকার ছিল। ছিয়ানব্বইতে ক্ষমতায় এসে আমরা তাদের উন্নয়নে নানা পদক্ষেপ নেই। আমাদের সে উন্নয়ন কর্মসূচি চলছে। মাদারীপুর ও শরীয়তপুরে ১২০ একর জমিতে তাঁতপল্লী গড়ে তোলা হচ্ছে। করা হচ্ছে বেনারসিপল্লী। এ শিল্পের উন্নয়নে আমাদের বিশেষ দৃষ্টি রয়েছে, যা যা করণীয় আমরা করব।
এক সময় টাঙ্গাইল, সিরাজগঞ্জ, পাবনা থেকে শুরু করে ফরিদপুর, নরসিংদী রাজবাড়ী, যশোরসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় যে তাঁত শিল্পের প্রচলন ছিল এবং শাড়ি থেকে শুরু করে গামছা-লুঙ্গি সব কিছুই যে সেখানে তৈরি হত, সে কথা অনুষ্ঠানে স্মরণ করেন প্রধানমন্ত্রী।
এই শিল্প ছেড়ে তাঁতিরা অন্য পেশায় চলে যাওয়ায় আক্ষেপ করে শেখ হাসিনা বলেন, এটা তো একটা শিল্প, এটা একটা কলা, এটা একটা আর্ট, সেখান থেকে কেউ রিকশাচালক হয়ে যায়, কেউ মাটি কাটতে শুরু করে।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ

Leave a Reply

Your email address will not be published.