গ্রিসে আন্তর্জাতিক বর্ণবাদ ও ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

গ্রিসে বর্ণবাদ ও ফ্যাসিবাদ বিরোধী আন্তর্জাতিক দিবসে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। শনিবার প্রবাসী বাংলাদেশিরা দশটি দাবি নিয়ে এই সমাবেশে অংশ নেন। গ্রিক প্রবাসী বাংলাদেশিদের উল্লেখযোগ্য দাবিগুলো ছিল বর্ণবাদ ও ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো, গ্রিসে বসবাসরত সব অভিবাসীকে বৈধ করে নেয়া। জেলে বন্দি থাকা সব অভিবাসীকে মুক্ত করে দেয়া। গ্রিসে জন্ম নেয়া সব শিশুর নাগরিক অধিকার দেয়া, সব বৈধ অভিবাসীকে নাগরিকত্ব দেয়া, যুদ্ধ চলাকালীন সীমান্ত খুলে রাখা, বিশ্ব শান্তির লক্ষে যুদ্ধ ও বোমাবাজি বন্ধ করা, প্রবাসী শ্রমিকদের নেয় বিচার প্রতিষ্ঠা করা, গ্রিসের জাতীয় ও পৌর নির্বাচনে ভোটাধিকার দেয়া এবং ধর্ম নিরপেক্ষতা নিশ্চিত করা।
সমাবেশে গ্রিক বাংলাদেশ ওয়েল ফেয়ার ফাউন্ডেশনের পরিচালক আরিফুর রহমান আরিফ বলেন, প্রবাসীরা বিভিন্নভাবে বর্ণবাদীদের দ্বারা নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। ডোনাল্ড ট্রম্প যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পরপরই ইউরোপ জুড়ে বর্ণবাদীরা উৎসাহিত হয়েছে। গণতান্ত্রিক একটি দেশে থেকে আমরা বর্ণবাদ ও ফ্যাসিবাদীদের আশ্রয় দিতে পারি না। বর্ণবাদ ও ফ্যাসিবাদীদের আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে দিতে পারবো ইনশাআল্লাহ।
তিনি বলেন, প্রবাসীদের বৈধতা ও অধিকার নিশ্চিত করতে আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করে যাব। প্রবাসী অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষে বর্তমান গ্রিক সরকারের সঙ্গে আলোচনা অব্যাহত থাকবে। তিনি বলেন, ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন কখনো বৃথা যাবে না।
সভায় বাংলাদেশ কমিউনিটির সহ-সভাপতি হাজি আহসান উল্লাহ হাছান প্রবাসীদের দাবিগুলো পড়ে শুনান। সভা শেষে ব্যানার প্লেকার্ড নিয়ে স্লোগানে স্লোগানে মুখোর করে তোলা হয় এথেন্সের রাজপথ। মিছিলটি ওমনিয়া হয়ে সংসদ ভবনে আসে। সংসদসহ ইউরোপিয়ান কমিশন বরাবর স্মারকলিপি দেয়া হয়।
উল্লেখ্য, ১৯টি দেশে এই প্রথম বারের মতো একই সময়ে বিক্ষোভ সমাবেশ হয়। গ্রিসের এই সমাবেশে ২০৯টি সংগঠনসহ বাম রাজনৈতিক দলগুলো অংশ নেয়। বাংলাদেশিদের মধ্যে অংশ নেন বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন গ্রিস, বাংলাদেশ গ্রিস ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন, দোয়েল সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ রাজনৈতিক নেতারা।
উপস্থিত ছিলেন আহছান উল্লাহ হাছান, আরিফুর রহমান আরিফ, খালেক মাতুব্বর, আশরাফ উদ্দিন টিপু ঠাকুর, চন্দন উদ্দিন চৌধুরী, জালাল উদ্দিন, আবদুর রাজ্জাক টিটু, আহমেদ সোহেল, রিয়াদ লস্কর, আরিফুল ইসলাম তালুকদার, জহির ডাকুয়া, শরিফুল ইসলাম, ইসমাইল হোসেন রনি, আমিনুল হক সুফি, সামসুল আলম ডিপটি, মোরসেদ রুমি, মো. জাকির হোসেন, জাহিদুল হক, লোকমান হোসেন, মো. নুর-ই-জান্নাত, রাসেল প্রমুখ।

মানবকণ্ঠ/এফএইচ

Leave a Reply

Your email address will not be published.