কুসিক নির্বাচনে সেনা চাইলেন দুদু

ফাইল ছবি

আসন্ন কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে সেনা মোতায়নের দাবি জানিয়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু।
সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে সামনে এক মানববন্ধনে তিনি এই দাবি জানান। কুসিক নির্বাচনে সেনা মোতায়ন ও নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের দাবিতে সম্মিলিত গণতান্ত্রিক জোট এই মানববন্ধনের আয়োজন করে। আয়োজক সংগঠনের সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে ন্যাপ মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূইয়া, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য রফিক শিকদার প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সমালোচনা করে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ছাত্রলীগের ক্যাডার, জনতার মঞ্চের নেতা ছাত্রলীগ ক্যাডার প্রধান নির্বাচন কমিশনার নুরুল হুদার অধীনে কুমিল্লা সিটি নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না। তাই সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে আমরা অবিলম্বে সেখানে সেনাবাহিনী মোতায়নের দাবি জানাচ্ছি।
নির্বাচনী প্রচারে বিএনপির প্রার্থী-সর্মথকদের বাধা ও ভয়ভীতি প্রদান করা হচ্ছে অভিযোগ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, মানুষ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে চায়। কিন্তু সেই পরিবেশ এখনো কুমিল্লায় সৃষ্টি হয়নি। বিএনপির প্রার্থী সাক্কু’র সর্মথকদের গ্রেফতারি পরোয়ানা ছাড়াই হয়রানি করা হচ্ছে। যত রকম বাধার সৃষ্টি করা যায় তাই করা হচ্ছে। এই অবস্থায় স্বাভাবিক নির্বাচন হতে পারে না।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্যে করে দুদু বলেন, দেশের চলমান সংকটের সমাধান আপনি চান কিনা, সেটা আপনাকেই নির্ধারণ করতে হবে। সমাধান চাইলে জনগণের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। সময় চলে গেলে আর আলোচনার পরিবেশ থাকবে না। তখন দেশে ১৯৬৯ সালের মতো গণঅভ্যুত্থান হবে।

মানবকণ্ঠ/এমআই/এফএইচ